The news is by your side.

নুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড. ডে. মিল

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

মিড ডে মিল

শরমিতা লায়লা প্রমিঃ মুন্সীগঞ্জ জেলাধিন মিরকাদিম পৌরসভার নুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য স্কুল ম্যানেজিং কমিটির ব্যবস্থাপনায় এবং শিক্ষকমণ্ডলীর সহযোগিতায় মিড ডে মিল এর আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গোলাম ফারুক জমিদারের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক সমীর কুমার বিশ্বাস এর সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকেন মিরকাদিম পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন, বিশেষ অতিথি মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন আহাম্মেদ। আরও উপস্থিত থাকেন মিরকাদিম পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিন, মিরকাদিম পৌরসভার কাউন্সিলার আদ্দুল মজিদ, হাজি আজমান হোসেজ ও মোসাম্মৎ সানয়ারা বেগম, ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক আব্দুল বাসিত লাভলু, কমান্ডার আব্দুল রহিম,শাহ আলম মৃধা, কামরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সান্ত রহমান, ম্যানেজিং কমিটির সহ সভাপতি রাবেয়া বেগম, সদস্য আনিস জমিদার, সদস্য কামনা বনিক প্রমুখ বিশিষ্টজন। বিল্যালয়ের প্রায় তিন শতাধিক ছাত্র- ছাত্রীদের সাথে অতিথিবৃন্দ মিড ডে মিল-এ অংশ নেন।

মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন

বিশেষ অতিথি এবং বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন আহাম্মেদ বলেন মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মধ্যে নুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেধা তালিকায় ১-১০তম অবস্থানে থাকে, শিক্ষকমণ্ডলী খুবই যত্নের সাথে শিক্ষাদান করে থাকেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনা মতে ম্যানেজিং কমিটি এবং শিক্ষক মণ্ডলী প্রায়ই মিড ডে মিল এর আয়োজন করে থাকে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারী ভাবে মিড ডে মিল আয়োজনের ঘোষণা দিইয়েছেন শিশু বান্ধব প্রধানমন্ত্রী ছাত্রছাত্রীদের জন্য স্কুল ড্রেস প্রদানের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেই জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই।

মিড ডে মিল

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন বলেন নুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালর শিক্ষা ক্ষেত্রে যেমন এগিয়ে আছে তেমনি সরকারী বিভিন্ন অনুষ্ঠানসমুহ যথাযথভাবে পালন করে থাকে সেই জন্য ম্যানেজিং কমিটি এবং শিক্ষক মণ্ডলীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। মিরকাদিম পৌরসভার প্রায় প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয় নিজ নিজ বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রিদের জন্য দুপুরের খাবারের আয়োজন করে থাকে, শিক্ষা বান্ধব আমাদের প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন সেখ হাসিনা মাধ্যমিক পর্যায় ছাত্র ছাত্রীদের লেখা পড়ায় উৎসাহিত করতে বিত্তি প্রদান করে আসছে্ন, প্রাথমিক পর্যায়ও ছাত্র ছাত্রিদের মাঝে স্কুল দ্রেস ও দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করবেন বলে ঘোষণা করেছেন। আমাদের শিক্ষক মণ্ডলী আর অভিভাবকদের ছাত্র ছাত্রীদের প্রতি আর যত্নবান হতে হবে, শিক্ষার মানবৃদ্ধি ও ছাত্র ছাত্রীদের ঝরে পরা রোধ করতে হবে।

মেয়র বলেন আমি প্রতি মাসে একদিন করে এই বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করবো। এবং মাসে একবার ছাত্র ছাত্রীদের সাথে দুপুরের খাবারে অংশ নিব। আলোচনা শেষে মেয়র ও অতিথিবৃন্দ ছাত্রছাত্রীদের সাথে দুপুরের খাবারে যোগ দেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: