The news is by your side.

নৌকায় আর মনোনয়ন পাবেন না যারা।।শেখ হাসিনার কঠোর সিদ্ধান্ত

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চেতনায় একাত্তরঃ আওয়ামী লীগের পরিচয় দিয়ে অপকর্ম করা, বিতর্কিত কর্মকান্ডে জড়ানো সহ ৫ অভিযোগের যেকোন একটি কোন এমপির বিরুদ্ধে প্রমাণিত হলে, তাকে আর পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়া হবে না। আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন।

দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিমের সংগে দল ও সংগঠন বিষয়ে পৃথক পৃথক আলাপে আওয়ামী লীগ সভাপতি তার এই মনোভাব জানান।

সম্প্রতি পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগের কিছু কিছু এমপির বিরুদ্ধে তদ্বির, নিজের লোককে মনোনয়ন দেয়ার চেষ্টার জন্য ফলে বিভক্তি সৃষ্টির অভিযোগ উত্থাপিত হয়। এসব ঘটনায় দলের মধ্যে সমস্যা হচ্ছে। আর এ কারনেই যে সব এমপিরা দলের জন্য ‘ক্ষতিকর’ তাদের ভবিষ্যতে আর ‘নৌকা’ না দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষ নেতা বলেছেন, নির্বাচনের দুবছর অতিক্রম হয়েছে। এখন থেকেই আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে দলটি। তাই, বর্তমান এমপিদের কাজ কম এবং জনপ্রিয়তা মূল্যায়ন করছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। এপ্রেক্ষিতে, ৫ ধরনের অভিযোগে অভিযুক্তরা আগামীতে মনোনয়ন পাবেন না; এরা হলেন:-

১. এমপি হয়ে বিতর্কিত কর্মকান্ডে জড়ালে, এমপি হয়ে ভূমি দখল, জমি দখল, দুর্নীতি, অর্থসাৎ সহ বিভিন্ন অপকর্মের অভিযোগ যাদের বিরুদ্ধে প্রমাণিত হবে, তারা ভবিষ্যতে আর মনোনয়ন পাবে না।

২. অনুপ্রবেশকারীদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিলে, যারা দলের পরিচয় দিয়ে অনুপ্রবেশকারীদের আ¤্রয় প্রশ্রয় দেবেন। নিজের প্রভাব বৃদ্ধির জন্য এদের দলে গুরুত্বপূর্ণ করার চেষ্টা করবেন। তারা আগামীতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাবেন না।

৩. নৌকার বিরুদ্ধে কাজ করবে :- স্থানীয় সরকার নির্বাচনে যে সব সংসদ সদস্য নৌকা প্রতীক পাওয়া প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করবে তাদের জন্য নৌকা প্রতীক নিষিদ্ধ হবে।

৪. দলের যারা বিভক্তি সৃষ্টি করবে: যেসব এমপিরা জেলা বা স্থানীয় পর্যায়ে কোন্দল এবং বিভক্তি সৃষ্টি করবে। যারা দলের ভেতর ‘মাইম্যান’ সৃষ্টি করবে, তাদের ভবিষ্যতে মনোনয়ন দেয়া হবে না।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments are closed.