The news is by your side.

বাংলাদেশে চার ধাপে করোনার টিকা বিতরণের পরিকল্পনা

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চেতনায় ডেস্কঃঃ এক বছরের বেশি সময় ধরে চলমান করোনাভাইরাস মহামারির এই পর্যায়ে এসে বিশ্ব কিছুটা স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছে। কারণ, ইতিমধ্যে অন্তত তিনটি টিকা তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ (ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল) শেষ করে আশানুরূপ ফল হাতে পেয়েছে। মানবজাতির ইতিহাসে এত দ্রুততম সময়ে আর কখনো কোনো টিকা আবিষ্কৃত হয়নি।

বাংলাদেশে চার ধাপে করোনার টিকা বিতরণের পরিকল্পনা

ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা ইতিমধ্যে জরুরি ব্যবহারের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) অনুমোদন পেয়ে গেছে। মডার্না ও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা পরীক্ষার ফলাফল আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর কাছে জমা দেওয়া হয়েছে অনুমোদনের জন্য। এর বাইরে স্থানীয়ভাবে অনুমোদনের পর ইতিমধ্যে চীন, রাশিয়াসহ কয়েকটি দেশে টিকার ব্যবহার শুরু হয়েছে, যেমন রাশিয়ার গ্যামালিয়া ইনস্টিটিউটের স্পুটনিক-৫ টিকা, চীনের সিনোভ্যাক।

বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের টিকা আগামী মাস থেকে দেওয়া শুরু হবে, সরকার ইতিমধ্যে বিতরন প্রক্রিয়ার একটি ছক তৈরি করছে, সব কিছু ঠিকঠাক মতো অগ্রসর হলে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ইতিবাচক ফললাভ করবে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments are closed.