The news is by your side.

মিরকাদিম পৌর আওয়ামী লীগ আয়োজিত গনভোজ ও শোকসভা

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

শরমিতা লায়লা প্রমিঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম মৃত্যু বার্ষিকী জাতিয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে মিরকাদিম পৌরসভা আওয়ামী লিগ গনভোজ ও শোক সভার আয়োজন করে। নুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন খোলা প্রাঙ্গণে ৩নাং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক আবদুল বাসিত লাভলুর সভাপতিত্বে শোক সভার প্রধান অতিথি পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহিন, প্রধানবক্তা মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন আহাম্মেদ, বিশেষ অতিথি জেলা আওয়ামী লীগ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক সালাউদ্দিন আহাম্মেদ, মিরকাদিম পৌর আওয়ামী লীগ সহসভাপতি আব্দুল বাতেল সেনটুঁ আরও উপস্থিত ছিলেন সৌরভ আহাম্মেদ জনি, সাওন আহাম্মেদ জুম্মান, ফারুক জমিদার, কামরুল ইসলাম ইসলাম জাহাঙ্গির, দিল ইসলাম, হিরা মমতাজ, বর্ণালী বাবুল, লিটন জমিদার, জিকু মুন্সীসহ প্রমুখ ব্যাক্তিবর্গ।

মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহিন বঙ্গবন্ধুর সৃতিচারন করে বলেন আমরা বঙ্গবন্ধুর কাছে যেতে পারি নাই ছোট ছিলাম বলে, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর মহিউদ্দিনকে দেখেছি তার আদর স্নেহ ভালোবাসা পেয়েছি। তার কাছ থেকে শুনেছি বঙ্গবন্ধু কত বড় মাপের নেতা ছিলেন, ছিলেন বিশাল হৃদয়ের মানুষ, এই মহান নেতাকে যারা হত্যা করেছিল,এবং খুনিদেরে যারা ইন্দন যুগিয়েছিল তাদেরও বিচার হতে হবে, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিতার আদর্শকে অন্তরে ধারন করে এই দেশের মানুষের স্বপ্নপুরনে নিররসভাবে কাজ করে দেশকে দ্রুত উন্নয়ের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।তাই আজকের শোক দিবসের শপথ হোক বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে আমরা একতাবদ্ধভাবে কাজ করে যাব।

কামাল আহাম্মেদ বলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়িত হলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, মানুষ আজ দুবেলা খেয়ে পরে ভালই আছেন, পদ্মাসেতু হচ্ছে আরও অনেক মেগা প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।খুনিরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে এই দেশের মানুষের সুখশান্তি ধ্বংস করেছিল, হাঁসি কেঁড়ে নিয়েছিল, শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় এই দেশের মানুষ সুখ শান্তি ফিরে পেয়েছে, দেশ এর মানুষ যখন হেঁসে খেলে সুখে শান্তিতে জীবন যাপন করবে, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে, তখন বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে।আলোচনা শেষে মেয়রসহ

সকলে বঙ্গবন্ধুর প্রকৃতিতে মাল্যদান করে এবং গনভোজের উদ্বোধন করেন।                     

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.