The news is by your side.

মুন্সিগঞ্জ জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ ও অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ডেস্ক নিউজঃ মুন্সিগঞ্জ জেলা পুলিশের নিয়মিত মাসিক কল্যাণসভা সোমবার ৯ সেপ্টেম্বর মুন্সিগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম(বার) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় কল্যাণসভায় উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম ও প্রশাসন) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল খন্দকার আশফাকুজ্জান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সিরাজদিখান সার্কেল) রাজিবুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) নাজমুর রায়হান ।

ইন্সপেক্টরদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ডি আই, নজরুল ইসলাম, ডি আই প্রাণবন্ধু দাস, ডিবি অফিসার ইনচার্জ এস এম আলমগীর হোসেন, ডিবি কোর্ট ইন্সপেক্টর হেদায়েত উল্লাহ,

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনিছুর রহমান, গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশিদ, সিরাজদীখান থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন, শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ ইউনুচ আলী, লৌহজং থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসাইনসহ ইন্সপেক্টর, এ.এস.আই, এসআই, কন্সটেবলবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

কল্যাণসভায় আগস্ট মাসে ভাল কাজের জন্য পুরস্কার দেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপি এম। এসময় সভায় সভাপতির পুলিশ সুপার জায়েদুল পিপিএম (বার) সমাপনী বক্তব্যে ২০১৯ সালের ঢাকা রেঞ্জ হ্যন্ডবল টুর্নামেন্টের পুরুষ ও নারী দল চ্যম্পিয়ন হওয়ায় প্রত্যেক খেলোয়ারকে দুই হাজার টাকা করে পুরস্কারের ঘোষণা দেন এবং সামনের দিকে ভাল খেলার পরামর্শ দেন তিনি ।মুন্সিগঞ্জ জেলায় আইন শৃংখলা পরিস্থিতির বিগত সালের পরিসংখ্যান উল্লেখ করে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম পিপিএম বার বলেন, আমি যখন এ জেলাতে আসি তখন ওয়ারেন্ট ছিল ২২ হাজার এখন বর্তমানে ওয়ারেন্ট আছে ৮ হাজার । বছরে গড়ে পূর্বে ছিল ৩ হাজার বর্তমানে আমরা ১১ হাজার আসামী ধরতে সক্ষম হই ।আর ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীদের ধরায় বর্তমানে আইনশৃংখলা পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে । পূর্বে ২০১৩-২০১৫ সালে যে কতগুলো খুনের ঘটনা ঘটেছে তার থেকে ২০১৬ সাল থেকে চলতি ২০১৯ পর্যন্ত ১৮ টি খুন কম হয়েছে । ডাকাতদের প্রকোপ অনেকাংশে কমে গিয়েছে এছাড়া বিভিন্ন অভিযানে মাদক মামলার সংখ্যা বাড়ায় মাদকাশক্ত আসামীর সংখ্যা কমে গিয়েছে ।এছাড়া আমরা যখন কাজ শুরু করি ২০১৬ সালের আগস্টে তখন এক বছরের উপরে মামলা ছিল ২৬ টি বর্তমানে তা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে পেরেছি । অপমৃত্যু মামলা ১ বছর আগে ছিল ৪৮ টি এখন একটিও নেই । তিনি আরো বলেন, এই অর্জনশুধু আমার একার না এই জেলাতে কর্মরত কনস্টেবল , এএসআই ,এস আই ও ইন্সপেক্টর সহ সকলের অবদান এই জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান ।পরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সকলের উপস্থিতিতে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: