The news is by your side.

চিকিৎসক ছিড়ে ফেললেন মুক্তিযোদ্ধার সনদ

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ডেস্ক নিউজঃ টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ছিড়ে ফেললেন মুক্তিযোদ্ধার সনদ। টাঙ্গাইলের রসুলপুর মহেড়া গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. শাজাহান ভূইয়া তার মাজা ও পায়ের জয়েন্টের হাড় ফেটে যাওয়ায় গত ১৭ নভেম্বর চিকিৎসা নিতে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি হন।

গত ২১ নভেম্বর হাসপাতালের অর্থোপেডিক সার্জারী বিভাগের প্রধান ও সহযোগি অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ কায়সার সকালে ভিজিট করতে এসে রোগির ফাইল দেখেন। ফাইলে রাখা মুক্তিযোদ্ধা শাজাহানের মুক্তিযুদ্ধের সনদ দেখে ক্ষিপ্ত হন এবং বলেন ‘‘এই সনদ কি রোগির চিকিৎসা করবে, না ডাক্তার করবে’’ বলে সনদটি ছিড়ে ফেলে দেন। ডাক্তারের এ আচরণে আশপাশের লোকজন বিস্ময় প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান ভূইয়ার জামাতা আল আমিন বলেন, আমার শ্বশুর একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সরকারি সকল সুযোগ-সুবিধা পেয়ে থাকেন। মুক্তিযুদ্ধের সনদ দেখিয়েই ভর্তি করানো হয় এবং রোগির ফাইলে তা রাখা হয়। এক্ষেত্রে ডা. মো. শহীদুল্লাহ কায়সার সনদ দেখে কেন ক্ষিপ্ত হয়ে তা ছিড়ে ফেললেন আমি বুঝতে পারলাম না। আমি মনে করি এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই।
ঘটনা সম্পর্কে ডা. মো. শহীদুল্লাহ কায়সারের সাথে মুটোফোনে যোগাযোগ করা হলে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।/ সাপ্তাহিক জাহাজমারা পত্রিকা থেকে সংগৃহীত

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: